সাধের আসন প্রশ্নউত্তর- বিহারীলাল চক্রবর্তী - আলোচনা - UGC NET

 "হাসি হাসি ইন্দ্রধনু নীল গগনে ভাষ 

শারদ নীরদগণে কি কথা বলিতে চায়।

স্বপনে কি দেখে শিশু নিমীলিত নয়নে,

ঘুমায়ে ঘুমায়ে হাসে, জানি না কি কারণে ।"

বিহারীলাল চক্রবর্তী "সাধের আসন" কাব্য থেকে  লাইনটি সংগৃহীত করা হয়েছে। কবি বিহারীলাল চক্রবর্তী সাধের আসন কাব্যের রোমান্টিকতা তার কাব্যে ছড়িয়ে দিয়েছেন।

সাধের আসন - বিহারীলাল চক্রবর্তী - প্রশ্ন উত্তর আলোচনা - UGC NET


সাধের আসন প্রশ্ন উত্তর- বিহারীলাল চক্রবর্তী - আলোচনা - UGC NET -Part 2:

সাধের আসন কার লেখা?
উ: বিহারীলাল চক্রবর্তী।

সাধের আসন কাব্যটি কার স্মৃতির উদ্দেশ্যে লেখা?
উ: কাদম্বরী দেবী।
  • সপ্তম স্বর্গের নাম মায়া
  • স্তবক ৩৩ টি ।
  • অকলুষি অর্থাৎ নির্মল।
  • পিতাভ অর্থাৎ হলুদ আভাযুক্ত।
  • সপ্তম স্বর্গের রাজা দিলীপের উল্লেখ আছে।
  • ত্রিকুল অর্থাৎ পিতা মাতা এবং শশুর কূল।
  • সপ্তম স্বর্গে কপিলা বুড়ির উল্লেখ আছে,।

  • অষ্টম স্বর্গের নাম শশীকলা (স্তবক ২টি)।
  • স্থির -সৌদামিনী (স্তবক পাঁচটি)। 
  • বীনা এবং কিন্নরগীত (চারটি স্তবক)।
  • মোট স্তবক ১১ টি।
  • অষ্টম স্বর্গে কিন্নর গীতি নামে একটি গান আছে। অষ্টম স্বর্গে মোট তিনটি গান আছে ।
  • রজত অর্থ রুপোর মতো শুদ্ধ ।
  • সীমস্তিনী অর্থাৎ স্ত্রী ।
  • নবম স্বর্গের নাম গীত আসন দাত্রী দেবী।
  • কুড়িটি (গান সহ) স্তবক আছে ।
  • স্বর্গের শুরুতেই গান আছে।
  • ইংরেজি, ফরাসি এবং বাংলার উল্লেখ আছে।
★ সাধের আসন কাব্যটি কোন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়?
উ: মালঞ্চ পত্রিকায়।
  • দশম স্বর্গের নাম গীত,পতীব্রতা উপসংহার, শোক সংগীত এবং শান্তি গীত ।
  • স্তবক সংখ্যা ১২ ও দশটি ।
  • শেষে শান্তি গীতি আছে।
  • দামিনী অর্থ বিদ্যুৎ ।
  • সুষমা অর্থ সুন্দর।
  • ইন্দ্রধনু অর্থ রামধনু ।

সাধের আসন কাব্যের প্রথম লাইন এবং শেষ লাইন সর্গ অনুযায়ী:


• প্রথম স্বর্গের প্রথম লাইন : 
              "ধেয়াই কাঁহারে ,দেবী
                 নিজে আমি জানিনে।
• প্রথম স্বর্গের শেষ লাইন:
        "কবির যোগীর ধ্যান ভোলা প্রেমিকের প্রাণ 
            মানব মনের তুমি উদার সুষমা।"
 
• দ্বিতীয় স্বর্গের প্রথম লাইন: 
             " সুশান্ত গোধূলি বেলা
      ননীর পুতুল গুলি ভুলিয়াছে খেলাধদেলা।"

দ্বিতীয় স্বর্গের শেষ লাইন :
        "বল গো মা বল বল ,কার তুমি করুণা ?"

• তৃতীয় স্বর্গের প্রথম লাইন:
    " মধুর ,মধুর আহা, কে ললিল গায় রে।"( রাগিনী কালাংড়া , ঝাঁপ তাল)।

• তৃতীয় স্বর্গের শেষ লাইন :"
          "সজল নয়নে শুধু চেয়ে আছি রাঙ্গাপায় ।"

• চতুর্থ স্বর্গের প্রথম লাইন:
       " দিগন্ত ললাট পটে, সাধের নন্দন বন ।
 চতুর্থ স্বর্গের শেষ লাইন : 
        "দেখিগে যোগেন্দ্র বালা যোগ ভোলা নয়নে।"

• পঞ্চম স্বর্গের প্রথম লাইন: 
         " দৃষ্টিপথ প্রান্তভাগে ওই কি অমরাবতী?
 পঞ্চম স্বর্গের লাইন শেষ লাইন:
     " দেখি যে যোগেন্দ্র বালা যোগ ভোলা নয়নে।

 • ষষ্ঠ স্বর্গের শেষ লাইন : 
         "কে ওই আসিছে পথে পারিজাত পুষ্প রথে।
 ষষ্ঠ স্বর্গের শেষ লাইন :
              "দেখিয়ে যোগেন্দ্র বালা......। 

• সপ্তম স্বর্গের প্রথম লাইন :
         "একি একি ,একি মায়া সম্মুখে মানবীকায়া।"
 স্বর্গের শেষ লাইন:
          " দেখিগে যোগেন্দ্র বালা...
 
• অষ্টম স্বর্গের প্রথম লাইন:
          " দিকে দিকে কুঞ্জবন পাখি সব করে গান।"
 অষ্টম স্বর্গের শেষ লাইন: 
" মধুর মধুর চির -পূর্ণিমার যামিনী যামিনী।
 
• নবম স্বর্গের প্রথম লাইন :
"প্রাণ কেন এমন করে( আমার)
 নবম স্বর্গের শেষ লাইন :
       "হৃদয়ে উদয়াচল আলো হয়েছে কেমন।"

• দশম সর্গের প্রথম লাইন:
         "আহহ! সম্মুখে সুমঙ্গল একই!
দশম সর্গের শেষ লাইন:
     "ঢেলে দাও মানবের তপ্ত অশ্রু জলে।"
 
• উপসংহারের প্রথম লাইন:
         " বলে নাহি গেলে আমায়"
 শেষ লাইন:
       " সে সব প্রফুল্ল ফুল গিয়েছে কোথায়"।

সাধের আসন কাব্যের গান, তাল এবং রাগিণীর নাম:

★ সাধের আসন কাব্যের গান প্রথম গান 
:"মধুর মধুর তোর রূপ যামিনী/ হরষে হরষময়ী শশী সোহাগিনী "
রাগিনী কালাংরা ও ঝাঁপতাল।
 গানের নাম কিন্নর গীতি।
 অষ্টম স্বর্গের শেষে এই গানটি আছে।

★" প্রাণ কেন এমন করে (আমার )/কি হলো কি হলো রে অন্তরে ।"
গানের কোন নাম নেই।
  নবম স্বর্গের শুরুতে গানটি আছে।

 ★ "অহহ! সম্মুখে সুমঙ্গল একি !/দেবী, দাঁড়াও নয়ন ভরে দেখি।"
 রাগিনি —ললিত ।তাল —কাওয়ালী।
 দশম স্বর্গের শুরুতে আছে।

" ফুল ফোটে না আর সাধের বাগানে ।"
গানের নাম শোক সংগীত।
 দশম স্বর্গের শেষে এবং উপসংহারের পরে আছে।

 ★ "প্রেমের সাগরে ফুলতরণী /চির বিকশিত নলিনী!"
রাগিনী —ললিত ভৈরবী।
 তাল —তেতাল।
 গানের নাম শান্তিগীতি
 কাব্যের শেষে গানটি আছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.